মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৩১st মে ২০২২

আরডিএ, বগুড়া ও লিমরা ট্রেড ফেয়ার এন্ড এক্সিবিশনস লিঃ এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ঢাকার বসুন্ধরা সিটিতে অনুষ্ঠিত হলো দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম ১০ম আন্তর্জাতিক কৃষি প্রযুক্তি মেলা ২০২২


প্রকাশন তারিখ : 2022-05-26
 
বিগত ১৩ বছরের ধারাবাহিকতায় রাজধানীতে শুরু হয়েছে ১০ম আন্তর্জাতিক কৃষি প্রযুক্তি মেলা-২০২২। ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরা, জোয়ার সাহারা, ঢাকায় অনুষ্ঠানরত ২৬-২৮ মে ২০২২ মেয়াদে তিনদিন ব্যাপী এ বছরের মেলায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, চীন, ভারতসহ ১৮টি দেশের প্রতিনিধি প্রতিষ্ঠান তাদের প্রযুক্তি প্রদর্শন করছেন। পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের আওতাধীন পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (আরডিএ), বগুড়া ও লিমরা ট্রেড ফেয়ার এন্ড এক্সিবিশনস লিঃ এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এই আন্তর্জাতিক মেলায় কৃষি প্রযুক্তি সংক্রান্ত গবেষক, উৎপাদনকারী, আমদানীকারক, ব্যবহারকারী এবং সাধারণ কৃষক প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করছেন।
গতকাল ২৬ মে ২০২২ তারিখে অনুষ্ঠিত মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এমপি। 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (আরডিএ), বগুড়ার মহাপরিচালক জনাব খলিল আহমদ। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন একাডেমীর পরিচালক (প্রশিক্ষণ) ও মেলার আহবায়ক জনাব মোঃ ফেরদৌস হোসেন খান, লিমরার চেয়ারম্যান জনাব কাজী ছারোয়ার উদ্দিন, প্রমূখ।
      উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তাঁর বক্তৃতায় দেশের কৃষি উন্নয়নে এ ধরনের কৃষি প্রযুক্তি নির্ভর মেলা আয়োজনে গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি উন্নয়নে যে রূপরেখা প্রদান করেছিলেন পরবর্তীতে তা দেশের খাদ্য নিরাপত্তা ও স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। বাংলাদেশের কৃষি ও কৃষকের উন্নয়ন এবং এর উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি ও ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধিতে সরকারি সংস্থার পাশাপাশি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, কৃষি ও কৃষি সংশ্লিষ্ট যন্ত্রপাতি উৎপাদক, প্রযুক্তি সম্প্রসারণকারী শিল্প ও প্রতিষ্ঠাসমূহের উদ্যোগ অনস্বীকার্য।
      তিনি আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে কৃষি ও ভাগ্যাহত কৃষককূলের উন্নয়নে বাস্তবায়িত হচ্ছে বিভিন্ন কর্মসূচী। প্রচলিত সনাতন ধারার কৃষি প্রযুক্তির পরির্বতনে খামার যান্ত্রিকীকরণের পাশাপাশি উন্নত প্রযুক্তি ও কলাকৌশল এর সমন্বয় সাধন একান্ত প্রয়োজন। এ লক্ষ্য পূরণে এ মেলা গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। 
       এবারের প্রদর্শনীতে রাইস মিল, ফিড মিল, ওয়েল মিল, ফ্লাওয়ার মিল মেশিনারিজ, ফুড এন্ড বেভারেজ প্রসেসিং এন্ড প্যাকিং, এগ্রি মেশিনারি, পাওয়ার টিলার, ড্রায়ার, কুলার, চিলার এবং সাইলো সংক্রান্ত বিভিন্ন দেশের প্রযুক্তি প্রদর্শিত হচ্ছে। এবারের প্রদর্শনীতে দেশ-বিদেশের চার শতাধিক কোম্পানি তাদের পণ্য ও প্রযুক্তি প্রদর্শন করছেন।
        আন্তর্জাতিক এই প্রদর্শনীর মাধ্যমে দেশি-বিদেশি সরবরাহকারী, ব্যবহারকারী, গবেষক এবং প্রস্তুতকারকদের মধ্যে পারস্পরিক অভিজ্ঞতা বিনিময়ের সুযোগ তৈরি হয়েছে যা দেশের কৃষি প্রযুক্তি খাতকে সমৃদ্ধ করবে।
        ১০ম আন্তর্জাতিক কৃষি প্রযুক্তি মেলায় বিভিন্ন দেশের প্রযুক্তি প্রদর্শনের পাশাপাশি The Dream of Bangabandhu and Five Decades of Agricultural Development in Bangladesh এবং
Agricultural Mechanization of Bangladesh - Past, Present and Future বিষয়ক দু’টি আন্তর্জাতিক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ড. জাহাঙ্গীর আলম, সাবেক উপাচার্য, ইউনিভার্সিটি অব গ্লোবাল ভিলেজ এবং বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মোঃ মঞ্জুরুল আলম।
 
    
    
    

 
 

 

Reply
Forward
 
 
 
 


Share with :

Facebook Facebook